Wednesday , May 22 2019
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / আন্তর্জাতিক / সৌদিতে এখন গৃহকর্মীদেরকে প্রচুর নির্যাতন, খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত দেয়া হয়

সৌদিতে এখন গৃহকর্মীদেরকে প্রচুর নির্যাতন, খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত দেয়া হয়

তারা আমার লগে খারাপ কাজ করতে চাইত।খারাপ কাজ না করলে ইঞ্জেকশন দিত।হাত মিলাইবার কথা কইয়া সুঁই ঢুকে দিত।যখন সুঁইগুলা দিত,তখন মাথা ঘুইরা পইরা যাইতাম,অজ্ঞান হইতাম;কিচ্ছু কইতে পারতাম না- এভাবেই কথাগুলো বলছিলেন সৌদি ফেরত নির্যাতনের শিকার নারী রেখা ছদ্মনাম।গৃহকর্মী হিসেবে সৌদি আরবে গিয়েছিলেন রেখা।সেখানে একটি বাসায় ছিলেন ৭ মাস।কিন্তু এই কয় মাসে বাসার মালিক,মলিকের স্ত্রী ও সন্তানরা তার ওপর অমানবিক নির্যাতন চালান বলে অভিযোগ তার।

নির্যাতনে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ঠিকমতো কথাও বলতে পারছিলেন না রেখা।কিছু সঠিক তথ্য দিলেও বেশির ভাগ সময়েই তিনি উল্টাপাল্টা বকছিলেন।অবশ্য বাসার মালিক তাকে ইঞ্জেকশন দেওয়ার পর আর কী হতো,তা বলতে পারেননি জোছনা।পরশু (২১ জুলাই) রাতে এয়ার এরাবিয়ার একটি বিমানে গৃহকর্মী হিসেবে গিয়ে নির্যাতনের শিকার হওয়া ৪৩ জন নারী দেশে ফিরেছেন।তারা সকলে সৌদির ইমিগ্রেশন ক্যাম্পে ছিলেন।তাদের মধ্যে রেখাও ছিলেন একজন।

সৌদি ফেরত অন্য নারীদের অবস্থা স্বাভাবিক মনে হলেও রেখা ছিলেন পুরোপুরি অস্বাভাবিক।শাহজালাল বিমানবন্দরে ফ্লাইট থেকে নামার পর তাকে এক নারীর মাধ্যমে বের করে আনা হয়।এরপর তাকে কিছুক্ষণের জন্য একটি মালবাহী স্ট্রেচারে বসিয়ে রাখা হয়।পরে তার হাতে ব্র্যাকের অভিবাসন শাখা থেকে আগত স্বেচ্ছাসেবকরা খাবারের প্যাকেট তুলে দেন।সেই খাবার খাওয়ার ফাঁকে ফাঁকে জোছনার কথা হয় সাংবাদিকদের

সৌদি ফেরত ওই নারী মাঝেমধ্যে তার বাবার নাম,গ্রাম,জেলার নাম বলতে পারলেও পরক্ষণই আবার সব ভুলে যাচ্ছিলেন।বারবার সৌদির সেই বাসার মালিকের নির্যাতনের গল্পগুলো বলছিলেন আর বাংলা-আরবি মিশিয়ে কী কী সব বলছিলেন!বারবার তার শরীরে ইঞ্জেকশন পুশ করার কথাও বলছিলেন।তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় বাসার মালিক কেন ইঞ্জেকশন পুশ করতেন,তা তিনি নিজেও জানতেন না।

রেখার ভাষ্য,খারাপ কাজ করতে চাইলে বাঁচার জন্য তিনি সবার সামনে বসে নামাজ পড়তেন।তার শরীরে ৩০টা ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছে।তার মালিক বলতেন,ইদরা(আরবিতে ইঞ্জেকশন) ভালো,এটা বলেই পুশ করতো।সুঁই ফুটানোর লগে লগে আমার মাথা ঘুরান দিয়া পইরা যাইতাম।মাটিত পইড়া অজ্ঞান হইয়া যাইতাম। ওরা আমারে মাইরা পাগল বানাইছে।আল্লাহ ওগো বিচার কইরবে।

রেখা আরও জানান,তার কোনো এক সময় বিয়ে হয়েছিল।কিন্তু স্বামীর সঙ্গে সংসার করা হয়নি।সৌদি যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত বাবার বাড়িতেই থাকতেন।বাড়তি আয়ের আশায় দালালের মাধ্যমে সৌদি পাড়ি জমান তিনি।মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে রেখা যে দেশে ফিরছেন,খবরটি সে আসার দিন পর্যন্ত জানতে না তার পরিবারের সদস্যরা।পরে তার পরিবারকে ব্র্যাকের অভিবাসন শাখার পক্ষ থেকে যোগাযোগ করে জানানো হয়েছে।অবশ্য এখনো ব্র্যাকের অভিবাসন শাখায় তাকে রাখা হয়েছে।আগামীকাল (২৪ জুলাই) রেখাকে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন অভিবাসন শাখার সংশ্লিষ্টরা।

Check Also

ফেসবুক ইউটিউবে সরকারি নিয়ন্ত্রণ সেপ্টেম্বর থেকে

ফেসবুক, ইউটিউব বা গুগলের মতো ওয়েবসাইট থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব ও সামাজিক মূলবোধ পরিপন্থী নির্দিষ্ট কোনো …

টাকা না দিলে সেবা বন্ধ করে দিন : প্রধানমন্ত্রী

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার কাছে বিদ্যুতের বকেয়া বিল পেতে দিনের পর দিন ধরনা দিয়ে …

একই সময়ে ৯ নার্স গর্ভবতী!

একই হাসপাতালে কর্মরত তারা। শুধু তাই নয়, ৯ নার্সই কাজ করেন হাসপাতালের ডেলিভারি ইউনিটে। তারাই …

বিশ্বের ‘ঘৃণিত একাদশে’ মুশফিক

ভারতীয় ক্রিকেট ভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেটট্র্যাকার’ বিশ্ব ক্রিকেটের ঘৃণিত খেলোয়াড়দের এক তালিকা করেছে, যার মধ্যে তারা …

মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে নরেন্দ্র মোদিকে ভোট দিন : বিজেপি

ভারত থেকে মুসলমানদের নিশ্চিহ্ন করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিজেপি নেতা রঞ্জিত …

চীন থেকে মেশিন নিয়ে এসে ১০ -১২ হাজার মুসলিমদের দাড়ি কেটে দেওয়া হবে :বিজেপি নেতা

বিপ্লব কুমার দেবের বেফাঁস মন্তব্যের অভ্যেস বিজেপির অন্যান্য নেতাদের মধ্যেও সংক্রামিত হয়েছে সেটা কোনো অপ্রাপ্ত …

তলা ফেটে লঞ্চে পানি, রক্ষা পেলেন তিন শতাধিক যাত্রী

ঢাকা-লালমোহন রুটে চলাচলকারী এমভি গ্লোরি অব শ্রীনগর-২ নামে যাত্রীবাহী লঞ্চের সঙ্গে বালুবোঝাই কার্গোর ধাক্কা লেগে …

ভারতের ভয়াবহ জঙ্গি হামলা, নিহত ১১,আহত অনেক

সন্দেহভাজন জঙ্গি হামলায় ভারতের অরুণাচল প্রদেশের ১১ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজন অরুণাচলের বিধায়ক। …

নির্বাচনে প্রার্থী হলেন খালেদা জিয়া

বগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হয়েছেন খালেদা জিয়া। দলটির প্রার্থী হিসেবে কারাগারে থাকা দলের …

মক্কার দিকে ধেয়ে আসা ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস, পবিত্র নগরীকে টার্গেট করায় নিন্দার ঝড়

সৌদি এয়ার ডিফেন্স ফোর্স সোমবার ইয়েমেন থেকে ছোড়া দুটি ক্ষেপণাস্ত্রকে ধ্বংস করেছে। ক্ষেপণাস্ত্র দুটি মক্কা …

১৫+ অস্বাভাবিক ছবি যা আপনাকে সারা দিন চালিয়ে যেতে সাহায্য করবে

তারা সর্বদা বলে যে হাঁসি হল সেরা ঔষধ। একটি চাপের দিনে হাসি শুধু একটি সহজ …

শতাধিক মন্ত্রী-এমপি ও নেতার বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাচ্ছে আ’লীগ

স্থানীয় সরকার নির্বাচন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতৃত্বের নজরের বাইরে ছিল না। এটা তৃণমূল নেতাকর্মী সমর্থকরা …

কঙ্কালে পরিণত হচ্ছে আবির, ফেলে চলে গেছে বাবা-মা

অজানা রোগে আক্রান্ত চার বছর বয়সী শিশু আবিরের শরীরটা দিনদিন তাকে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। …

‘তোকে রাখার চেষ্টা করেছি, রাব্বানীর জন্য পারিনি’

ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যাচেষ্টার আগে ফেসবুকে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক …

সবাই যখন তারাবির নামাজে ব্যস্ত ঠিক তখনই প্রেমিকার সাথে মিলিত হতে যায় আহাদ

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে প্রেমের টানে গোপন অভিসারে লিপ্ত থাকা অবস্থায় জনতার হাতে কিশোর বয়সী এক প্রেমিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *