Friday , May 24 2019
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / Prime News / শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

আজ ১৭ মে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস। দীর্ঘ প্রবাস জীবন শেষে ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে ফিরে আসেন তিনি। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সপরিবারে নিহত হওয়ার পর তার দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা ছয় বছর প্রবাসে থাকতে বাধ্য হন। বরাবরের মতো এবারও শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন করবে আওয়ামী লীগ।

এদিন তাকে বহনকারী উড়োজাহাজটি বিকালে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে কলকাতা হয়ে ঢাকায় নামলে বিমানবন্দরে লাখো মানুষ তাকে স্বাগত জানান।

দিনটি উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন এ উপলক্ষে দেশব্যাপী নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। এ সময় তার দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা প্রবাসে থাকায় প্রাণে বেঁচে যান।

১৯৮১ সালে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের ওই দিনটি ছিল রোববার। সারা দেশ থেকে আসা লাখো মানুষ সেদিন তাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান, ভালোবাসায় সিক্ত হন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা। বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করে তাকে একনজর দেখার জন্য কুর্মিটোলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শেরেবাংলা নগর পর্যন্ত লাখো মানুষের ঢল নামে।

সেদিনের মেঘের গর্জন, ঝঞ্ঝা-বিক্ষুব্ধ প্রকৃতি যেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যার বদলা নেয়ার লক্ষ্যে গর্জে উঠেছিল, আর অবিরাম মুষলধারে ভারি বর্ষণে যেন ধুয়ে-মুছে যাচ্ছিল বাংলার মাটিতে পিতৃহত্যার জমাট বাঁধা পাপ আর কলঙ্কের চিহ্ন।

ঝড়-বাদল আর জনতার আনন্দাশ্রুতে অবগাহন করে শেরেবাংলা নগরে লাখো জনতার সংবর্ধনার জবাবে সেদিন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা বলেছিলেন, সব হারিয়ে আপনাদের মাঝে এসেছি, বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে তার আদর্শ বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে জাতির পিতার হত্যার প্রতিশোধ গ্রহণে আমি জীবন উৎসর্গ করতে চাই। তিনি বলেন, আমার আর হারাবার কিছুই নেই। বাবা-মা, ছোট ভাই রাসেলসহ সবাইকে হারিয়ে আমি আপনাদের কাছে এসেছি, আমি আপনাদের মাঝেই তাদের ফিরে পেতে চাই। আপনাদের নিয়েই আমি বঙ্গবন্ধুর নির্দেশিত পথে তা বাস্তবায়ন করে বাংলার দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে চাই, বাঙালি জাতির আর্থ-সামাজিক তথা সার্বিক মুক্তি ছিনিয়ে আনতে চাই।

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার দেশে ফেরার আগেই ওই বছরের (১৯৮১) ১৪, ১৫ ও ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার হোটেল ইডেনে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিল অধিবেশনে তার অনুপস্থিতিতেই তাকে সর্বসম্মতিক্রমে আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।

সেই বঙ্গবন্ধুকন্যার দূরদৃষ্টি, বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ মহাকাশে। সমুদ্র বিজয়, সীমান্ত বিজয়ের পর মহাকাশে স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণ- বাংলাদেশ যেন নতুন বিস্ময় বিশ্বে। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু এখন দৃশ্যমান।

জনকল্যাণমুখী কার্যক্রমে দেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। তারই নেতৃত্বে ক্রমাগত প্রবৃদ্ধি অর্জনসহ মাথাপিছু আয় বাড়ছে, কমছে দারিদ্র্যের হার। দেশকে সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত করতে তিনি ‘ভিশন-২০২১’ ও ‘ভিশন-২০৪১’ কর্মসূচি নিয়েছেন। গ্রহণ করেছেন ডেল্টাপ্ল্যান-২১০০। গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও জনগণের কল্যাণে শেখ হাসিনার এসব যুগান্তকারী কর্মসূচি বাংলার ইতিহাসে চিরভাস্বর হয়ে থাকবে।

কিন্তু ১৯৮১ সালে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পর শেখ হাসিনার রাজনৈতিক পথ মসৃণ ছিল না। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে আজকের অবস্থানে আসতে হয়েছে তাকে। বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রোকেয়া প্রাচী তার এক নিবন্ধে শেখ হাসিনার রাজনৈতিক জীবন তুলে ধরেন এভাবে- ‘একবার নয়, দুইবার নয়, শেখ হাসিনাকে ১৯ বার হত্যার চেষ্টা চালানো হয়েছিল।

কখনও নিজ বাসভবনে, কখনও জনসভায় আবার কখনও তার গাড়িবহরে, ক্ষমতায় যাতে শেখ হাসিনা কোনোভাবে যেতে না পারেন। ষড়যন্ত্রের গোপন জাল বিছিয়ে রেখেছিল রাষ্ট্র ক্ষমতার ভেতরে মুখ লুকিয়ে যারা বেঁচেছিল। গোটা আশির দশক স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলন হয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে।

কিন্তু আন্দোলনের কোনো ফসলই তাকে ঘরে তুলতে দেয়নি নেপথ্যের ষড়যন্ত্রকারী মহল। যার ফলশ্রুতিতে ’৯১-এর নির্বাচনে পরাজয়। স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্ব সর্বাধিক ত্যাগ স্বীকার করার পরেও এ পরাজয় অপ্রত্যাশিত ছিল।

কিন্তু তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা প্রবর্তনের দাবিতে ১৯৯৪-১৯৯৬ সালে বিএনপিবিরোধী তীব্র আন্দোলন শুরু করেন শেখ হাসিনা। তার আন্দোলনের ফলে সৃষ্ট তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে অনুষ্ঠিত ১২ জুন ১৯৯৬ সালের সাধারণ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সংখ্যাগরিষ্ঠ দল হিসেবে নির্বাচিত হয় এবং ২৩ জুন ১৯৯৬ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন বঙ্গবন্ধু কন্যা।’

এরপরের ইতিহাস সবারই জানা। দেশ ও জনগণের কল্যাণে অভূতপূর্ব অবদান রাখায় দেশের মানুষ তাকে পরপর টানা তিনবারসহ মোট চারবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৯তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে আওয়ামী লীগ। এদিন রাজধানী ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সারা দেশে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, মসজিদ-মন্দিরসহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রার্থনালয়ে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বিকাল ৩টায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে হবে আলোচনা সভা।

এতে সভাপতিত্ব করবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী। আলোচনায় অংশ নেবেন দেশের বরেণ্য নাগরিক ও জাতীয় নেতারা।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, পৌর, থানা, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে দোয়া, মিলাদ-মাহফিলসহ ধর্মীয় উপাসনালয়ে বিশেষ প্রার্থনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালনে দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বসাধারণকে অনুরোধ জানিয়েছেন

Check Also

জাতীয় পেকুয়ায় ধর্ষণের শিকার শিশুর আত্মহত্যার চেষ্টা

রোববার (১৯ মে) রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এরপর ধর্ষনের শিকার ওই শিশুর …

ফারাক্কা চুক্তির ২২ বছর পরও পানির অসম বণ্টন, বন্যার আভাস

জানুয়ারী মাস থেকে মে মাস পর্যন্ত চলা শুকনো মৌসুমে পাকশীর হার্ডিঞ্জব্রীজ পয়েন্টসহ পদ্মানদীতে প্রতিবছর তীব্র …

বাজে মেয়ে হয়েই থাকতে চান এই বাঙালী অভিনেত্রী অলিভিয়া…!!!

অলিভিয়া সরকার মানেই টেলিপর্দাতে চোখ ঝলসে দেওয়া লুক এবং জ্বালাময়ী উপস্থিতি। বিগত বেশ কয়েকটি ধারাবাহিকে …

অনার্সের ছাত্রীকে শিকলবন্দী, বাবা-মা গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় সিদ্ধিশ্বরী কলেজের অনার্সের এক ছাত্রীকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখায় বাবা-মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। …

থানায় আসতে হবে না, ফোন দিন আপনার ঘরে পৌঁছে যাবে পুলিশ

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ছিনতাই ও যানজট নিরসনকল্পে অভিনব পদ্ধতিতে মহড়া শুরু করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ …

ধর্ষণের পর স্কুলছাত্রীকে ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিল পুলিশ সদস্য

মাদারীপুর পৌরসভার টিবি ক্লিনিক সড়কে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ঘরের ভেন্টিলেটর দিয়ে বাইরে ফেলে দেয়ার …

জঙ্গলে সন্তান প্রসব করেন এই মহিলা

আজকাল ওয়েবডেস্ক: দেশ এগোচ্ছে। ডিজিটাল ইন্ডিয়ার স্বপ্ন দেখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু এসবের পরেও দেশের …

টিউবওয়েলে পানি খেতে গিয়ে ধর্ষণ এর শিকার এক ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী গৃহবধূ !

রাজশাহী দুর্গাপুরে এক ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ব্রহ্মপুর পুর্বপাড়া …

বিশেষ বার্তায় যা বললেন মমতা…!!

রবিবার ১৭তম লোকসভা নির্বাচন শেষ হয়েছে৷ নির্বাচনের বুথ ফেরত সমীক্ষাগুলি কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্য …

মহিলাদের সম্পর্কে যে ১৫টি ভুল ভাবনা এখনই ত্যাগ করা উচিত পুরুষের…!!

মেয়েদের ব্যাপারে পুরুষমাত্রই কিছু ভুল জানেন ও ভাবেন। সব পুরুষই মনে করেন নারীকে তিনি সম্পূর্ণ …

রোজা রেখে দায়িত্ব পালন, রাজধানীতে ট্রাফিক পুলিশের মৃত্যু

রাজধানীর বিজয় সরণিতে রোজা রেখে দায়িত্ব পালনকালে ট্রাফিক কনস্টেবল আজিজুল ইসলাম (৫২) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে …

বেহুলা-লক্ষ্মীন্দরের কাহিনীকে হার মানানো রোমানা-রাজীবের মিলনের সমাপ্তি!

আনোয়ার হোসেন রাজীব, লৌহজং পাইলট উচ্চবিদ্যালয় থেকে ২০০২ সালে এসএসসি পাস, ২০০৪ সালে লৌহজং মহাবিদ্যালয় …

ঈশ্বরদী আশেপাশে এলাকাসহ অসহনীয় গরমে মানুষ অতিষ্ঠ

পাবনা প্রতিনিধি :গত তিন দিন ধরে পাবনা এলাকায় তাপমাত্রা ৩৯ডিগ্রীর উপরে থাকায় মৌসুমের মাঝারি তাপদাহ …

গাজীপুরের শ্রীপুরে মনিরা খাতুন (৬) ডেগের ভেতর শিশুর মরদেহ!

নিজস্ব প্রতিনিধি, গাজীপুরের শ্রীপুরে মনিরা খাতুন (৬) নামে এক শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার …

বেড়াতে গিয়ে মদপান, ফুফুসহ দুই বোনের মৃত্যু

বেড়াতে গিয়ে অতিরিক্ত মদপানে দুই বোনসহ তিন নারীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *