Wednesday , May 22 2019
Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home / News / প্রবাসী স্বামীকে গলাকেটে হত্যা করে রাতেই পরকীয়া প্রেমিকের সাথে মিলিত হয় হুসনা!

প্রবাসী স্বামীকে গলাকেটে হত্যা করে রাতেই পরকীয়া প্রেমিকের সাথে মিলিত হয় হুসনা!

সৌদি প্রবাসী স্বামীকে গলাকেটে হত্যার পর মরদেহ সেপটি ট্যাংকের ভেতরে ফেলে দিয়েছেন স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিক। এরপর সেই রাতেই স্বামীর ঘরেই পরকীয়া প্রেমিকের সাথে দৈহিক সম্পর্কে মিলিত হন তিনি।

রোমহর্ষক এ ঘটনাটি সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার। বুধবার উপজেলার বাউরভাগ নূরপুর গ্রামের আব্দুল হাফিজের ছেলে সৌদি প্রবাসী মাসুক আহমদের বাড়ির বাথরুমের ট্যাংক থেকে ফারুক আহমদের (৩৫) মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

জানা যায়, বাউরভাগ নূরপুর গ্রামের প্রবাসী ফারুক আহমদের স্ত্রী হুসনা বেগম। ফারুক আহমদ কয়েক বছর ধরে সৌদি আরবে বসবাস করছেন। আর তিন সন্তানকে নিয়ে নিজ বাড়ি কানাইঘাটের নূরপুর গ্রামে বসবাস করছেন হুসনা বেগম। স্বামী ফারুক আহমদ প্রবাসে থাকার সুযোগে একই গ্রামের পার্শ্ববর্তী বাড়ির নছির আলী আক্কার পুত্র মোস্তফা আহমদের সঙ্গে দীর্ঘদিন থেকে পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল ফারুক আহমদের স্ত্রী হুসনা বেগমের। বিষয়টি জানতো বাড়ির মানুষ। গ্রামেও তাদের পরকীয়ার বিষয়টি চাউর হয়েছে। কয়েক গ্রামের মানুষের মধ্যেও এ নিয়ে কানাকানি ছিল।

ফারুক আহমদ সৌদি আরবে থাকাকালেই পরকীয়া নিয়ে বেশ কয়েকবার সালিশ বিচার হয়। এরপরও তাদের প্রেমের সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়নি। বরং তারা একে অপরের প্রেমে আরো বেপরোয়া হয়ে যান। রাত নামলেই পরকীয়ার উদ্দাম টানে প্রেমিক মোস্তফা চলে আসতো হুসনার ঘরে। মতে উঠতো অবাধ যৌনতায়।

এদিকে, এই অবস্থা সইতে না পেরে প্রায় দু’মাস আগে ফারুক সৌদি আরব থেকে বাড়িতে চলে আসে। এতে মোস্তফা আহমদের সঙ্গে পরকীয়ার সম্পর্ক নিয়ে হুসনা বেগম ও ফারুক আহমদের মধ্যে মনোমালিন্য ও ঝগড়া-বিবাদ দেখা দেয়। মোস্তফার কবল থেকে স্ত্রী হুসনাকে ফিরিয়ে আনতে নানা চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন ফারুক। পরিবারের এই বিবাদমান অবস্থার মধ্যে গত রোববার থেকে নিখোঁজ ছিলেন সৌদি ফেরত প্রবাসী ফারুক।

তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। এ নিয়ে ফারুকের স্বজনরা স্ত্রী হুসনার সঙ্গে কথা বললেও নিখোঁজ ফারুকের ব্যাপারে পরিষ্কার কোনো উত্তর দেয়নি হুসনা বেগম। বিষয়টি নিয়ে রহস্য দেখা দেয় ফারুকের পরিবারের মধ্যে। হুসনার ঘরে রক্তের দাগ দেখতে পেয়ে আরও বেশী সন্দেহ দানা বাঁধে স্বজনদের মনে।

এরপর নিখোঁজ ফারুকের সন্ধান না পেয়ে মঙ্গলবার (৭ মে) বিকালে কানাইঘাট থানায় এ ব্যাপারে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন ফারুকের চাচা শামসুল হক। প্রবাসী ফারুক নিখোঁজের খবর পুলিশের কাছে পৌঁছামাত্র তারা ঘটনাটি তদন্ত শুরু করেন। তদন্তের একপর্যায়ে পুলিশ স্থানীয়দের সহযোগিতায় নিহতের স্ত্রী গোরকপুর গ্রামের মৃত মসাহিদ আলীর মেয়ে ৩ সন্তানের জননী হুসনা বেগমকে মঙ্গলবার রাতে আটক করে কানাইঘাট থানায় নিয়ে আসে।

আটকের পর প্রথমে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদকালে হুসনা ঘটনাটি এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তার ঘরে রক্ত কোথা থেকে এলো- এরকম প্রশ্ন করা হলে আটকে যায় হুসনা, ভেঙ্গে পড়ে সে। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে রাতেই থানায় খুনের ঘটনা স্বীকার করে হুসনা বেগম। তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত ৪টায় ফারুক আহমদের লাশ সেপটি ট্যাংকিতে খুঁজে পায় পুলিশ। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বুধবার সকাল ৭টায় ফারুক আহমদের গলা কাটা লাশ উদ্ধার করে কানাইঘাট থানা পুলিশ।

হুসনা বেগম জানিয়েছে, তার প্রেমিক মোস্তফা আহমদের সঙ্গে পরামর্শ করে সে রাতে তার স্বামী ফারুক আহমদকে ঘুমের ট্যাবলেট খাওয়ায়। ঘুমের ট্যাবলেট সেবনের পর ফারুক অচেতন হয়ে পড়লে রাতেই তার প্রেমিক মোস্তফাকে নিয়ে গলা কেটে স্বামীকে খুন করে। এবং লাশ গুম করে করতে সেপটি ট্যাংকির ভেতরে ফেলে রেখে সেই রাতেই স্বামীর ঘরে ফিরে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে মিলিত হয় হুসনা।

কানাইঘাট থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু কাওছার বলেন, ফারুক আহমদের হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি তার স্ত্রী হোসনা বেগমের সঙ্গে একই গ্রামের মোস্তফা আহমদের পরকীয়া প্রেমঘটিত কারণে হয়েছে। হুসনা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Check Also

ফেসবুক ইউটিউবে সরকারি নিয়ন্ত্রণ সেপ্টেম্বর থেকে

ফেসবুক, ইউটিউব বা গুগলের মতো ওয়েবসাইট থেকে দেশের সার্বভৌমত্ব ও সামাজিক মূলবোধ পরিপন্থী নির্দিষ্ট কোনো …

টাকা না দিলে সেবা বন্ধ করে দিন : প্রধানমন্ত্রী

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার কাছে বিদ্যুতের বকেয়া বিল পেতে দিনের পর দিন ধরনা দিয়ে …

একই সময়ে ৯ নার্স গর্ভবতী!

একই হাসপাতালে কর্মরত তারা। শুধু তাই নয়, ৯ নার্সই কাজ করেন হাসপাতালের ডেলিভারি ইউনিটে। তারাই …

চীন থেকে মেশিন নিয়ে এসে ১০ -১২ হাজার মুসলিমদের দাড়ি কেটে দেওয়া হবে :বিজেপি নেতা

বিপ্লব কুমার দেবের বেফাঁস মন্তব্যের অভ্যেস বিজেপির অন্যান্য নেতাদের মধ্যেও সংক্রামিত হয়েছে সেটা কোনো অপ্রাপ্ত …

ভারতের ভয়াবহ জঙ্গি হামলা, নিহত ১১,আহত অনেক

সন্দেহভাজন জঙ্গি হামলায় ভারতের অরুণাচল প্রদেশের ১১ জন নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে একজন অরুণাচলের বিধায়ক। …

নির্বাচনে প্রার্থী হলেন খালেদা জিয়া

বগুড়া-৬ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হয়েছেন খালেদা জিয়া। দলটির প্রার্থী হিসেবে কারাগারে থাকা দলের …

মক্কার দিকে ধেয়ে আসা ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস, পবিত্র নগরীকে টার্গেট করায় নিন্দার ঝড়

সৌদি এয়ার ডিফেন্স ফোর্স সোমবার ইয়েমেন থেকে ছোড়া দুটি ক্ষেপণাস্ত্রকে ধ্বংস করেছে। ক্ষেপণাস্ত্র দুটি মক্কা …

শতাধিক মন্ত্রী-এমপি ও নেতার বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাচ্ছে আ’লীগ

স্থানীয় সরকার নির্বাচন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতৃত্বের নজরের বাইরে ছিল না। এটা তৃণমূল নেতাকর্মী সমর্থকরা …

কঙ্কালে পরিণত হচ্ছে আবির, ফেলে চলে গেছে বাবা-মা

অজানা রোগে আক্রান্ত চার বছর বয়সী শিশু আবিরের শরীরটা দিনদিন তাকে মৃত্যুর দিকে নিয়ে যাচ্ছে। …

মক্কায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর এবার বিস্ফোরক ড্রোন হামলা

সৌদি আরবের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের নাজরান প্রদেশে দেশটির বেসামরিক স্থাপনায় বিস্ফোরক বোঝাই ড্রোন হামলা হয়েছে। পবিত্র নগরী …

হারছেন মোদি, প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন মমতা

ইতিমধ্যেই শেষ হয়েছে ভারতের জাতীয় লোকসভা নির্বাচনের সকল ধাপ। বুথফেরত জরিপে দেখা যাচ্ছে প্রায় সকল …

পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করলো বাংলাদেশ

পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দিল বাংলাদেশ। সোমবার এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে পাকিস্তান থেকে …

রাজধানীতে টিকিট ছাড়া আর বাস চলবে না: মেয়র

সড়কের জায়গা বেদখল যাতে না হয় সেজন্য সব পরিবহনের টিকিট কাউন্টার এক জায়গায় হবে। ঢাকার …

রমজান মাসের রাতে যে সূরা পাঠ করলে আল্লাহ্ তায়ালা মনের বাসনা পূর্ণ করেন

রমজান মাসের রাতে – পবিত্র কুরআন শরীফে ১১৪ টি সুরা আছে। প্রতিটি সুরার আছে স্পেশাল …

কবুতরের মাধ্যমে ঢাকায় ইয়াবা পাচার!

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে চলমান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাদকবিরোধী সাঁড়াশি অভিযানে বেকায়দায় আছে মাদক ব্যবসায়ীরা। তাই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *